সভ্যতার আবর্তন

সভ্যতার আবর্তন
-তারিক সামিন

একশত বছর আগে
সাম্যের বাণী প্রচার করতে
যে যুবক নিহত হয়েছিল পুলিশের গুলিতে;
আজ শত বছর পর পুনজন্ম লভি
মানুষের ধর্ম আর বাক-স্বাধীনতার জন্য
ফাঁসি-কাষ্ঠে ঝুলল কম্যুনিস্টদের হাতে।

হাজার বছর আগে যে আধ্যাতিক পুরুষ
ধর্মের মহান শিক্ষার আলো জ্বালিয়েছিল
অন্ধকার ঘরে,
সেদিন তার ছিন্ন মস্তক,
বিক্ষত দেহ
পাওয়া গেল উগ্রতার বিরুদ্ধাচরণে।

যে যুবক হিমালয়ের তীব্র শীত উপেক্ষা
করে ধ্যান-মত্ত কাটালো বিশ বছর,
গতকাল তার লাশ পাওয়া গেল
চিন্তার আধুনিকায়নের কারণে।

গণতন্ত্রের জন্য এক যুগ জেলে থাকা যুবতী
এজন্মে গুলি খেয়ে মরলো মুক্তচিন্তার জন্যে।

অমানুষদের কারণে-
সমাজতন্ত্র পরিণত হয় স্বৈরতন্ত্রে,
গণতন্ত্র পরিণত হয় লুটপাটতন্ত্রে
ধর্ম পরিণত হয় অর্ধমে,
মুক্তমত ব্যবহৃত হয় ঘৃণা ছড়াতে
সবই ক্ষমতালোভী মানুষের কারণে।

যারা মহৎ আর্দশের জন্য দিয়ে গেল প্রাণ
তারা সকলে মহামানব-মহীয়ান।
সে আর্দশ কুক্ষিগত করে, তাদের নাম বিক্রি করে
ফায়দা লোটে লোভীর দল।

এভাবে ভালো থেকে মন্দ, মন্দ থেকে ভালো
ঘুরে-ঘুরে আসে বিশ্ব মাঝে অবিরত,
সভ্য হয় অসভ্য, কুসংস্কার-অজ্ঞতার কারণে।



এই প্রতিবেদন টি 1016 বার পঠিত.