১২টি বিশেষ হজ ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি পেয়েছে বিমান

২৭ আগস্ট রোববার ও ২৮ আগস্ট সোমবার সৌদি আরবে ১২টি বিশেষ হজ ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি পেয়েছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস। ২৬ আগস্ট শনিবার বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের অনুরোধে সাড়া দিয়ে সৌদি কর্তৃপক্ষ এ অনুমতি দিয়েছে।
বিকেলে ঢাকায় নিযুক্ত সৌদি আরবের উপ-রাষ্ট্রদূত মো. নজরুল ইসলাম জানান, বাংলাদেশ বিমানের অনুরোধে সাড়া দিয়েছে সৌদি কর্তৃপক্ষ। আগামী দুই দিনে ১২টি বিশেষ হজ ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি পেয়েছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস।
১২টি বিশেষ হজ ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি পাওয়ায় অনিশ্চয়তায় থাকা প্রায় তিন হাজার হজযাত্রীর সৌদি আরবে যেতে পারবে বলে মনে করা হচ্ছে।
এদিকে হজ এজেন্সিগুলোর বিরুদ্ধে প্রতারণার নানা অভিযোগে আশকোনার হজ ক্যাম্পে বিক্ষোভ মিছিল করেছেন হজযাত্রীরা। শনিবার বেলা দুইটার দিকে ব্যানার নিয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন তারা। মিছিলে প্রতারক হজ এজেন্সির মালিকদের বিচার ও হজে যাওয়ার নিশ্চয়তার দাবি তোলেন তারা।
এ সময় তারা জানান, মদিনা এয়ার ইন্টারন্যাশনাল অ্যাভিয়েশন, আল বালাক, সানজিদ ট্রাভেল, ইকো ট্রাভেলসহ কয়েকটি এজেন্সি যাত্রীর কাছ থেকে টাকা নিয়েও টিকিট দেয়নি।
এ বছরের হজযাত্রার শেষ মুহূর্তে ২৫ আগস্ট শুক্রবার এজেন্সিগুলোর বিরুদ্ধে প্রতারণার নানা অভিযোগ নিয়ে হজযাত্রীরা জড়ো হন আশকোনার হজ ক্যাম্পে। এজেন্সিকে টাকা দিয়েও হজে যাওয়া এখনও নিশ্চিত হয়নি তাদের।
এর আগে সকালে ধর্ম মন্ত্রণালয়-সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি বজলুল হক হারুন সাংবাদিকদের বলেন, ‘যেসব এজেন্সির বিরুদ্ধে অভিযোগ এসেছে, তাদের বিরুদ্ধে থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়েছে। তারা যদি দুই দুনের মধ্যে হজযাত্রী পাঠানোর ব্যবস্থা না নেয়, তাহলে জিডি থেকে মামলা করা হবে।’
এ বছর বাংলাদেশ থেকে ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জনের পবিত্র হজ পালন করতে যাওয়ার কথা। ৯৫১ জনের পাসপোর্ট শেষ দিনেও জমা না পড়ায় তাদের ভিসা পাওয়ার আর সুযোগ নেই।
তাই বাংলাদেশ থেকে এবার হজে যাচ্ছেন ১ লাখ ২৬ হাজার ২৪৭ জন। গতকাল পর্যন্ত সৌদি আরবে পৌঁছেছেন ১ লাখ ৯ হাজার ৯৬ জন হজযাত্রী।



এই প্রতিবেদন টি 381 বার পঠিত.