খালেদা জিয়াকে সাধুবাদ জানিয়েছেন নাসিম

 বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে সাধুবাদ জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।
তিনি বলেন, ‘জাতীয় শোক দিবসে জন্মদিন পালন না করায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে সাধুবাদ জানাই।’
১৫ আগস্ট মঙ্গলবার রাজধানীর মহাখালীতে বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ানস অ্যান্ড সার্জন্স মিলনায়তনে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর আয়োজিত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে তিনি এ কথা বলেন।
তিনি বলেন, দেশের মানুষ জানে ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মধ্য দিয়ে বিএনপির জন্ম হয়েছিল বলেই তারা এই দিন তথাকথিত জন্মদিন পালন করতে চায়। কিন্তু তারা এই ধরনের অপচেষ্টার মধ্য দিয়ে মানুষের কাছে ঘৃণা কুড়াচ্ছে।
মোহাম্মদ নাসিম বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতার ঘোষণার মধ্য দিয়ে বাংলাদেশে মুক্তিযুদ্ধ পরিচালিত হয়েছে। বাংলাদেশের স্বাধীনতা এসেছে। কিন্তু ১৯৭৫-এর পর স্বাধীনতার ইতিহাসে নতুন নতুন নেতার নাম জড়ানো হয়েছে। অনেককে নেতা বানানোর চেষ্টা করা হয়েছে। যে দেশে জনকের হত্যার দিন ভুয়া জন্মদিন পালন করা হয়, সে দেশে নতুন নতুন নেতা বানানোর অপচেষ্টাও চালানো সম্ভব।
বঙ্গবন্ধুর পলাতক খুনিদের বাংলাদেশে ফিরিয়ে দিতে বিদেশি রাষ্ট্রগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচারের রায় অংশিক কার্যকর হয়েছে। এখনো কিছু খুনি দেশের বাইরে পালিয়ে আছে। যেসব দেশে এসব খুনি পালিয়ে আছে, সে রাষ্ট্রগুলোর প্রতি আহ্বান জানাব খুনিদের বিচারের রায় কার্যকর করার জন্য তাদের যেন দ্রুত বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো হয়।’
তিনি আদালতে সমালোচনা করে বলেন, ‘২১টা বছর যখন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হত্যার বিচার হয়নি, ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ জারি করে বিচার বন্ধ করা হয়েছে, খুনিরা যখন পার্লামেন্টে (সংসদ) ছিল, তখন তো কেউ বলেনি এই পার্লামেন্টের লোকগুলো অযোগ্য। সেদিন কোথায় ছিল আদালত?’
সভায়, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য প্রদান করেন স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব সিরাজুল হক খান, স্বাস্থ্যশিক্ষা ও পরিবারকল্যাণ বিভাগের সচিব সিরাজুল ইসলাম, পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের মহাপরিচালক কাজী মোস্তফা সারোয়ার, আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্যবিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা প্রমুখ।
এর আগে, বেলা ১১টায় স্বাস্থ্যমন্ত্রীর নেতৃত্বে ধানমন্ডির বঙ্গবন্ধু ভবন প্রাঙ্গণে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাৎবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। পরে তিনি শেওড়াপাড়ায় স্বেচ্ছাসেবক লীগ ঢাকা মহানগর উত্তর আয়োজিত বঙ্গবন্ধুর ৪২তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসের এক আলোচনা সভায় যোগ দেন।



এই প্রতিবেদন টি 469 বার পঠিত.