অর্থমন্ত্রীর নির্দেশে হার্ড লাইনে বন্দর কর্তৃপক্ষ

জান্নাতুল ফেরদৌস
অর্থমন্ত্রীর নির্দেশে হার্ড লাইনে বন্দর কর্তৃপক্ষ । বিশেশ সুত্রে জানা গেছে এ কথা। বন্দরে বেসরকারি ইনল্যান্ড কনটেইনার ডিপোগুলো (আইসিডি) মালিকদের গাফিলতি থাকলে কঠোর পদক্ষেপ নিতে বন্দর কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত। প্রয়োজনে লাইসেন্স বাতিলের মতো পদক্ষেপ নেয়ারও পরামর্শ দেন।
চট্টগ্রাম বন্দরে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে করণীয় বিষয়গুলো নিয়ে সংশ্লিষ্ট স্টেকহোল্ডারদের সাথে আলোচনার জন্য অর্থ মন্ত্রণালয়ে একটি সভায় গতকাল তিনি এসব কথা বলেন।
বৈঠকেই তিনি বন্দরের চেয়ারম্যানকে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়ার নির্দেশ দিয়ে বলেন, ‘এরা আপনাকে কোনো রকম সাহায্য করছে না। এদের লাইসেন্স বাতিল করে দেয়া উচিত। আবার রফতানির জন্য যেসব কার্গো চট্টগাম বন্দরে যায় সেগুলোকে তিন-চারদিন পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়। তারপর তারা অপলোড করার জায়গাও পায় না।’
অর্থমন্ত্রী বলেন, চট্টগ্রাম বন্দরে জাহাজ অপেক্ষার বিষয়টি খুবই লজ্জার। এটা জাতীয় পর্যায়ের ক্ষতি। এখন বন্দরের যে লজিস্টিক প্লাটফর্ম রয়েছে, তার উন্নয়ন অত্যন্ত প্রয়োজন। আমদানি ও রফতানি উভয় ক্ষেত্রেই পরিস্থিতির উন্নয়ন করতে হবে। জাতীয় স্বার্থে এ বিষয়ে সবার একান্ত সহযোগিতা চান তিনি।
নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমান, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ প্রধানসহ পোশাক শিল্প ও আমদানি-রফতানি-সংশ্লিষ্ট সব পক্ষ এ আলোচনায় অংশ নেন।



এই প্রতিবেদন টি 984 বার পঠিত.