আগুন! প্রাণে বেঁচে গেলেন ৩১৩ জন হজযাত্রী

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে হজ ফ্লাইটের বিমানে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে গেলেন ৩১৩ জন হজযাত্রী।

বেলা সোয়া ১১টায় সাউদিয়া এয়ারলাইন্সের ফ্লাইটে (এসভি ৮১১) এ ঘটনা ঘটে। এতে বিমানে থাকা হজযাত্রী, পাইলট ও কর্মীদের কোনো ক্ষতি হয়নি।

বিমানবন্দর সূত্রে জানা গেছে, সাউদিয়া এয়ারলাইন্সের বোয়িং ৭৭৭-২০০ উড়োজাহাজিটি ৩১৩ হজযাত্রী নিয়ে বোডিং ব্রিজ থেকে বেলা সোয়া ১১টায় উড্ডয়নের জন্য রানওয়ের দিকে যাত্রা শুরু করে। উড়োজাহাজটি কিছু দূর যাওয়া পর রিজেন্টে এয়ারওয়েজের এক কর্মী পিছন থেকে ধোঁয়া দেখতে পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে কন্ট্রোল টাওয়ারে জানান। কন্ট্রোল টাওয়ার সাউদিয়া এয়ারলাইন্সের পাইলটকে জানালে পাইলট সেখানেই উড়োজাহাজের ইঞ্জিন বন্ধ করে দেন। ওই সময় জরুরি ভিত্তিতে বিমানবন্দরের ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা সেখানে উপস্থিত হন। পরে রানওয়েওতে থাকা বিমানটি পুশ কার্ট দিয়ে সরিয়ে নেওয়া হয়।

শিডিউল অনুযায়ী ২৫ জুন মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টায় ঢাকা ত্যাগ করার কথা থাকলেও অগ্নিকাণ্ডের কারণে বেলা ১টা ৪৫ মিনিটে ফ্লাইটটি ঢাকা ছাড়ে।

হজযাত্রী খলিলুর রহমান পাটোয়ারী বলেন, শাহজালাল বিমানবন্দরে ৩১৩ হজযাত্রীকে নিয়ে অনবোর্ড অবস্থায় উড্ডয়নের কয়েক মিনিট আগে সাউদিয়া এয়ারলাইন্সের এসভি-৮১১ ফ্লাইটের এপিইউ-অক্সিলারি পাওয়ার ইউনিটে আগুন ধরে যায়। এতে বড় ধরনের দুর্ঘটনার সম্ভাবনা থাকলেও আল্লাহ আমাদের রক্ষা করেছেন।

বিমানের মুখপাত্র শাকিল মেরাজ বলেন, দুর্ঘটনা কথা শুনেছি। তবে হজযাত্রীরা নিরাপদে রয়েছেন।
এ বছর বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ও সাউদিয়া এয়ারলাইন্স হজ ফ্লাইট পরিচালনা করছে। ২৪ জুলাই থেকে ২৮ আগস্ট সাউদিয়া এয়ারলাইন্সের হজ ফ্লাইট চলবে। হজ পরবর্তী হাজিদের নিয়ে দেশে ফিরবে ৬ সেপ্টেম্বর থেকে ৬ অক্টোবর পর্যন্ত।



এই প্রতিবেদন টি 712 বার পঠিত.