কুলাউড়ায় যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসীর জমি দখল, নিরাপত্তা চেয়ে থানায় জিডি

কুলাউড়া (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি:
মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় সৈয়দ কামাল হোসেন নামের এক যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসীর জমি জোরপূর্বক দখল করে তাঁকে প্রাণে হত্যার হুমকি দিয়েছে স্থানীয় ভূমি খেকো ও সন্ত্রাসীরা। এব্যপাওে দখলকৃত জমি উদ্ধার ও নিজের নিরাপত্তা ছেয়ে কুলাউড়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন প্রবাসী কামাল।
অভিযোগ সুত্রমতে, স্থানীয় ভূমি খেকো ও চাঁদাবাজ হিসেবে পরিচিত মাহবুবুর রহমান শামীম, মুজিবুর রহমান সেলিম,শহীদুর রহমান ছগু, মুহিবুর রহমান শাহিদ ও তাদের সহযোগিদের দীর্ঘ দিনের পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী কুলাউড়া উপজেলার পৃথিমপাশা ইউনিয়নের দেওগাাঁও বড়বাড়ী গ্রামের মৃত সৈয়দ মাহমুদ আলীর ছেলে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসীর মালিকানাধীন ৭শতক ভূমি জোরপূর্বক দখল করে উল্টো তাকে প্রাণে হত্যার হুমকি দিয়ে যাচ্ছে। অভিযুক্তরা গত ১৬ ফেব্রুয়ারী বৃহস্পতিবার দুপুরে প্রবাসীর বাড়ীতে দায়িত্বে থাকা তত্বাবধায়ক আব্দুস সহিদকে বাড়িতে প্রবেশ করে তাঁর গলা চেপে ধরলে তার চিৎকার শুনে কামাল হোসেন বাঁচাতে গেলে উল্টো ওই সন্ত্রাসীরা দেশিও অস্ত্র হাতে নিয়ে তাকে হামলার চেষ্টা করে। ওইদিন রাতে নিজের নিরাপত্তা চেয়ে কুল্উাড়া থানায় একটি জিডি করেন। অভিযোগে আরো উল্লেখ করা হয়েছে কামাল হোসেনের পরিবারের সদস্যরা যুক্তরাষ্ট্র ও ঢাকায় স্থায়ীভাবে বসবাস করার সুবাদে ওই অভিযুক্তরা প্রতিনিয়ত তাদের ভূমি দখলের চেষ্টা করে। অপরদিকে কামাল হোসেন থানায় জিডি করেছেন অভিযুক্তরা জানতে পেরে ক্ষিপ্ত হয়ে তাঁর কাছে ১০ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে। পাশাপাশি চাঁদা না দিলে আরো ভূ-সম্পত্তি দখল করবে অন্যতায় তাকে হত্যা করে লাশ গুম করারও হুমকি দিয়েছে।
এদিকে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসীর ভূমি দখল করে উল্টো হুমকি দেওয়ার খবর শুনে উপজেলার অধিকাংশ প্রবাসীরা আতংকের মধ্যে রয়েছেন। তারা মৌলভীবাজার জেলা ও কুলাউড়া উপজেলা প্রশাসনের প্রতি জোর দাবি জানান এ ঘটনার সুষ্ঠ তদন্ত করে ভূমি খেকো, চাদাঁবাজ ও সন্ত্রাসীদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় এনে জেলহাজতে প্রেরণের দাবি জানান।
এ ব্যাপারে অভিযুক্ত মাহবুবুর রহমান শামীম, মুজিবুর রহমান সেলিমের মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করলে তারা ফোন রিসিভ করেননি।
যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী সৈয়দ কামাল হোসেন বলেন, বর্তমানে আমি এবং আমার পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় ভোগছি। অভিযুক্ত ভূমি খেকো ও সন্ত্রাসীরা যে কোন সময় আমাকে ও বাড়ির তত্বাবধায়ককে হত্যা করে লাশ গুম করে ফেলতে পারে বলে আশংকায় রয়েছি। এ জন্য আইনশৃঙ্খলা বাহীনি ও পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের সহযোগিতা কামনা করছি।
এ ব্যাপারে কুলাউড়া থানার (ভারপ্রাপ্ত) কর্মকর্তা মোঃ সামসুদ্দোহা পিপিএম বলেন, প্রবাসীর করা অভিযোগ হাতে পেয়েছি আইন অনুযায়ী তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।



এই প্রতিবেদন টি 523 বার পঠিত.