ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি

ঢাকা, ৩০ সেপ্টেম্বর রেডটাইমস বিডি ডটকম:

MASH+1টেস্ট ও ওয়ানডে দলের জন্য আলাদা অধিনায়ক নির্বাচন করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড l ওয়ানডে দলের অধিনায়ক হয়েছেন মাশরাফি বিন মুর্তজা, রঙিন পোশাকে তার সহকারী সাকিব আল হাসান l

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ঘরের মাঠের ওয়ানডে সিরিজে নেতৃত্ব দেবেন মাশরাফি l এই সিরিজেই তার সহকারী হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন সাকিব l

২০০৯ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দেয়া হয় মোহাম্মদ আশরাফুলকে l ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে অধিনায়কত্ব পান মাশরাফি l আর সহ-অধিনায়ক করা হয় সাকিব আল হাসানকে l

ওয়েস্ট ইন্ডিজে প্রথম টেস্টের প্রথম দিনই চোট পেয়ে মাঠ ছাড়েন মাশরাফি l সফরে বাকি দিনগুলোতে দলকে নেতৃত্ব দেন সাকিব l

সুস্থ হয়ে ওঠার পর ২০১০ সালের জুলাইয়ে ইউরোপ সফরে (ইংল্যান্ড, স্কটল্যান্ড ও আয়ারল্যান্ড) সফরে নেতৃত্ব ফিরে পান মাশরাফি l অক্টোবরে দেশের মাটিতে নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজেও নেতৃত্বে ছিলেন দেশসেরা এই পেসার l

কিন্তু প্রথম ম্যাচেই চোট পান মাশরাফি l ৪-০ ব্যবধানে সেই সিরিজে বাকি ম্যাচগুলোতে আবারো নেতৃত্ব দিতে হয় সাকিবকে। পরে ৩১ ডিসেম্বর সাকিবকে অধিনায়ক ও তামিম ইকবালকে সহ-অধিনায়ক ঘোষণা করে বিসিবি l

২০১১ সালে জিম্বাবুয়ে সফরে ব্যর্থতার পর নেতৃত্ব হারান সাকিব ও তামিম। তাদের জায়গায় আসেন মুশফিকুর রহিম ও মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ l পরে সহ-অধিনায়কত্ব হারান মাহমুদুল্লাহ l

ক্রিকেটে চলতি বছরে মোটেও ভালো কাটছে না বাংলাদেশের l তাই টেস্ট ও ওয়ানডেতে আলাদা নেতৃত্ব বেছে নেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় বিসিবি। তার অংশ হিসেবেই আবার নেতৃত্বে ফিরলেন মাশরাফি-সাকিব l

এ পর্যন্ত ৭টি ওয়ানডেতে দলকে নেতৃত্ব দিয়েছেন মাশরাফি। এতে ৩টিতে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ আর হেরেছে ৪টিতে। আর ৩৭টি ওয়ানডেতে দলকে নেতৃত্ব দেন মুশফিক l এর ১১টিতে জিতেছে বাংলাদেশ আর হেরেছে ২৪টিতে l

টেস্ট দলের নেতৃত্বে থাকছে মুশফিকই l আর এই সংস্করণে সহ-অধিনায়ক করা হয়েছে তামিম ইকবালকে l

রেডটাইমস বিডি ডটকম/ই এইচ/সু জ/এস ডি



এই প্রতিবেদন টি 380 বার পঠিত.